বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান pdf download

0
263
বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান pdf download

স্বাধীন বাংলাদেশ বাঙালির শ্রেষ্ঠ অর্জন। ইউরোপীয় ভাষাভিত্তিক রাষ্ট্র মতই নতুন এই রাষ্ট্রের জন্ম হয় এশিয়া মহাদেশে । বাঙালি জাতিসত্তার আত্মপ্রকাশ ঘটে ।

বাংলার অফুরন্ত প্রাকৃতিক সম্পদ লুষ্ঠনের জন্য বারবার হানা দিয়েছে বিভিন্ন জাতি ও গোষ্ঠী । লুণ্ঠন করে নিয়ে নিজেদের ভাগ্য গড়েছে। কিন্তু বাংলার মানুষ প্রকৃতিপ্রদত্ত এই অফুরন্ত সম্পদ ভাণ্ডার নিজেদের ভাগ্য গড়ার কাজে ব্যবহার করতে পারেনি ।

শুধু কি তাই? একদিকে সমস্ত সম্পদ লুপ্ঠন করেছে, অপরদিকে আঘাত হেনেছে সংস্কৃতি, ভাষা ও কৃষ্টির উপর । কেড়ে নিতে চেষ্টা করেছে মাকে মা বলে ডাকার অধিকার, মাতৃভাষাকে পরিবর্তন করে বিজাতীয় ভাষা চাপিয়ে দিতে চেয়েছে, ভিন্ন সংস্কৃতির অনুপ্রবেশ ঘটিয়ে আত্মপরিচয়টুকু পর্যস্ত মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র করেছে।

কিন্তু প্রতিবাদী বাঙালি বারবার এই ষড়যন্ত্র রুখে দাড়িয়েছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় যখনই বাঙালিরা অনেক ত্যাগের মধ্যদিয়ে আত্মনিয়ন্ত্রণের অধিকার অর্জন করেছে তখনই তা কেড়ে নেয়া হয়েছে। অথচ কি চেয়েছিল বাংলার মানুষ? দু’বেলা দু’মুঠো খাদ্য, একটু মাথা গৌজার জন্য বাসস্থান আর একটু উন্নত জীবন। শিক্ষা, চিকিৎসা ও কাজের সুযোগ |

বাঙালির দাবিকে যুগে যুগে নিম্পেষিত করা হয়েছে, তার গোলার ধান কেড়ে নেয়া হয়েছে, মুখের হাসি মলিন করা হয়েছে, তাকে দরিদ্রতর করে রাখা হয়েছে। বিদেশী শাসকগোষ্ঠির লোভী দৃষ্টি ছিল বাঙালির সরলতা, শ্রম ও সম্পদের উপর | তারা শুধু লুণ্ঠন করেই নিয়ে যায়নি, বাঙালির স্বাধীন সত্তাটিকে তিলে তিলে মেরে ফেলার অপচেষ্টাও করেছে।

কিন্তু মা, মাতৃভাষা ও মাতৃভূমির প্রতি আত্মনিবেদিত বাঙালি জাতি তার আপন সত্তার বিকাশে সংগ্রামী হয়েছে, প্রতিবাদী হয়েছে, নির্যাতন-লাঞ্কুনা ভোগ করেছে, জীবন দিয়েছে, রক্তের স্বাক্ষর রেখেছে। দীর্ঘ তেইশ বছরের ইতিহাস আজও তা সাক্ষ্য দেয়। বাঙালির দুর্জয় সাহসিকতা আজও বিশ্বে তার গৌরবের পতাকা বহন করে চলেছে।

১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। তিনি “যার যা কিছু রয়েছে তাই নিয়ে শত্রুর মোকাবেলা” করার ডাক দেন। তিনি দখলদার পাকিস্তানী সেনা বাহিনীকে

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান pdf download

Leave a Reply