আলোর মিছিল (Alor Michil) PDF Download

0
662
আলোর মিছিল (Alor Michil) PDF Download

ডক্টর আব্দুর রহমান রাফাত পাশা (রহ) • জন্ম—১৯২০ খ্রীষ্টাব্দে। জন্মস্থান সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলের ‘আরীহা’ শহর। সেখানেই প্রাথমিক শিক্ষা মাধ্যমিক পরীক্ষা পাশ করেন ‘হলব’ শহর খসরুবিয়া বিদ্যালয় থেকে। উচ্চ মাধ্যমিক ডিগ্রী আল-আজহারের ‘উসূলুদ্দীন’ (ধর্ম) অনুষদ থেকে। সব শেষে কায়রো ইউনিভার্সিটি থেকে আরবী সাহিত্যে অনার্স, মাস্টার্স ও পি.এইচ.ডি করেন। • কর্মজীবন শুরু করেন শিক্ষক ও পরীক্ষক হিসাবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে নিযুক্ত হন সিরিয়ার শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক আরবী ভাষার প্রধান পরিদর্শক (Inspector)। অতঃপর দামেস্কের উলুমুল আরাবিয়া পরিকল্পনাধীন ‘দারুল কুতুব’ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং পাশাপাশি দামেস্ক ইউনিভার্সিটির কলা অনুষদের প্রভাষক।।

• সৌদিয়ায় বদলি হয়ে ইমাম মুহাম্মদ ইবনে সউদ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা। এখানে তিনি ইসলামী সাহিত্য কারিকুলাম এবং ‘অলঙ্কার ও সমালােচনা বিভাগের চেয়ারম্যান, ‘মজলিসে ইলমী’র (শিক্ষা পরিষদের) আজীবন সদস্য ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা ও প্রকাশনা পরিষদ প্রধান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

জনাব ডঃ আবদুর রহমান ইসলামী সাহিত্য সৃষ্টির উদ্বোধক নন বরং তার পূর্বে বহু চিন্তাশীল ও গবেষকই এ কাজ করেছেন…. কিন্তু একমাত্র তিনিই পূর্বসূরীদের স্বপ্নের বাস্তবায়ন ও সার্থক রূপায়ণ ঘটাতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি একাই সাহিত্য ও সমালোচনার ক্ষেত্রে ফুটিয়ে তুলেছেন পরিপূর্ণ ইসলামী ভাবধারা।

তিনি সাইয়েদ আবুল হাসান আলী নদভীর সভাপতিত্বে ‘রাবেতা আল আদাবুল ইসলামীর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই এর সহ-সভাপতি। এছাড়াও বহু সংস্থা, সংঘ ও কমিটির তিনি ছিলেন একজন সক্রিয় ও প্রিয় সদস্য। • মৃত্যু ১৯৮৬ খ্রীষ্টাব্দের ১৮ই জুলাই শুক্রবারে তুর্কিস্তানের ইস্তাম্বুল শহরে ইন্তেকাল করেন। তাকে দাফন করা হয় সেখানেই ‘ফাতেহ’ গোরস্থানে। যেখানে সমাহিত রয়েছে অনেক সাহাবী ও তাবেঈ। জীবদ্দশায় যাদেরকে তিনি সর্বাধিক ভালবাসতেন এবং যাদের পাশে একটু স্থান পাওয়ার ব্যাকুল প্রার্থনা করতেন মহান প্রভুর দরবারে, আল্লাহ সেই প্রার্থনা কবুল করে পৃথিবীতে তার মৃতদেহ স্থান দিয়েছেন মহান সাহাবী ও তাবেঈদের কবরের পাশে। সর্বশক্তিমান আল্লাহর দরবারে আমাদের প্রার্থনা-চিরস্থায়ী জান্নাতে তাকে তাদের সঙ্গী বানিয়ে দিন। আমীন।

লেখকঃ ড. আবদুর রহমান রাফাত পাশা রহ

পূর্বাভাষ তাবেঈদের ঈমানদীপ্ত জীবন ‘আলোর মিছিল-১ সাতজন 9 তাবেঈ-র রূপান্তরিত বাংলা জীবন কথা। | মূল গ্রন্থের বিখ্যাত আরবী সাহিত্যিক, গবেষক, লেখক মরহুম ডক্টর আবদুর রহমান রাফাত পাশা। মূল গ্রন্থের নাম ‘ছুওয়ারুম্ মিন হায়াতিত তাবেঈন’। লেখক তাঁর কালজয়ী এই গ্রন্থে শুধু কেবল নিরেট সত্য ও নির্ভরযােগ্য বর্ণনাগুলােকেই স্থান দিয়েছেন। সুতরাং আরব বিশ্বে ব্যাপকহারে সমাদৃত ও বহুল পঠিত এই রচনা সম্পর্কে নির্দ্বিধায় বলা যায় যে, এটি সব ধরনের বাহুল্য, ভুল ও দুর্বল তথ্য মুক্ত একটি অমর ও অনবদ্য গ্রন্থ। এতদসত্ত্বেও উচ্চ সাহিত্য মানসম্পন্ন এ গ্রন্থের হৃদয় জুড়ানো ভাষা ও আবেগ জাগানো এক অনন্য রচনাশৈলী পাঠককে আলোড়িত করে তীব্রভাবে। পাঠক কখনো হন মুগু, কখনো আবার ভীষণ বেদনাহত। কখনাে তার হৃদয় কুলে আছড়ে পড়ে অনুশােচনার ঢেউ। কখনো ভেসে যায় তার দু’চোখের কূল। লেখকের অপূর্ব বর্ণনাভংপি পাঠককে বইয়ের পাতা থেকে একটানে তুলে নিয়ে যায়। সেই সুদূর অতীতে, সোনালী যুগের এক সোনালী সকাল পবিত্র আসরে। এভাবেই এ গ্রন্থের জীবনীগুলাে পাঠক শুধু পাঠই করেন না বরং এই সব জীবনে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো প্রত্যক্ষ করতে থাকেন। স্বচক্ষে। এই গ্রন্থের সবগুলো খণ্ডে যেসব মহান মনীষীর জীবন কথা আলােচিত হয়েছে, ইসলামে তাদেরকে আখ্যায়িত করা হয় “তাবেঈন’ বলে। তাদের নামের শেষে বলা হয় ‘রহমাতুল্লাহি আলাইহি। অর্থাৎ আল্লাহর রহমত বর্ষিত হোক তার রুহের উপর। মুলতঃ এ পৃথিবীর যাবতীয় কল্যাণকর ও উত্তম আদর্শের যিনি মূর্ত প্রতীক, তিনি সততা, সাধুতা, সমগ্র সৃষ্টির কল্যাণকামী সহ যাবতীয় উত্তম গুণ-বৈশিষ্ট্যের প্রতিষ্ঠাতা, যিনি মনুষ্যত্বের নির্মাতা, তিনি হলেন প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম।

Leave a Reply